মেনু নির্বাচন করুন
পাতা

বাংলাদেশের স্বাধীনতা ঘোষণা

 

বাংলাদেশের স্বাধীনতা ঘোষণা সম্পর্কে ‘উইকিপিডিয়া’ যা বলেছে!


[ স্বাধীনতার ঘোষক প্রশ্নে বাংলাদেশে বহুদিন থেকেই বিতর্ক চলে আসছে।বাংলাদেশের জনগণ স্বাধীনতার ঘোষক প্রশ্নে হয়তো বা এখনও কিছুটা বিভ্রান্তহয়ে আছে। কিন্তু বিশ্ববাসী বাংলাদেশের স্বাধীনতার ঘোষণা প্রশ্নে যা জানছে, 'উইকিপিডিয়া' থেকে তথ্য নিয়ে বঙ্গানুবাদ করে আমার সন্তানসম পাঠকদের জন্য তা এখানে পোস্ট করে দিলাম। ( অনুবাদে ভাষার দিক থেকে হয়তো বা একটু আধটুভুল-ভ্রান্তি হয়ে থাকবে, আমার অনিচ্ছাকৃত ভুল ক্ষমাসুন্দর দৃষ্টিতে দেখার জন্য অনুরোধ করছি]
Declaration of independence


স্বাধীনতা’র ঘোষণা


The violence unleashed by the Pakistani forces on 25 March 1971, proved the last straw to the efforts to negotiate a settlement. Following these outrages, Sheikh Mujibur Rahman signed an official declaration that read:


২৫শে মার্চ, ১৯৭১, বাংলাদেশের নিরীহ জনগণের উপর বর্বরপাকিস্তানী সেনাবাহিনী যে লাগামহীন বর্বর আক্রমন চালিয়েছে- এরপর দুই দেশেরনেতাদের মধ্যে আর কোন রাজনৈতিক সমঝোতার পথ খোলা ছিল না। এই উপলব্বধি থেকেইশেখ মুজিবুর রহমান ‘স্বাধীনতার ঘোষণা’পত্রে স্বাক্ষর করেন এবং তাসারাদেশবাসীকে জানিয়ে দেয়ার নির্দেশ দেন।


Today Bangladesh is a sovereign and independent country. On Thursday night, West Pakistani armed forces suddenly attacked the police barracks at Razarbagh and the EPR headquarters at Pilkhana in Dhaka. Many innocent and unarmed have been killed in Dhakacity and other places of Bangladesh. Violent clashes between E.P.R. and Police on the one hand and the armed forces of Pakistanon the other, are going on. The Bengalis are fighting the enemy with great courage for an independent Bangladesh. May Allah aid us in our fight for freedom. Joy Bangla.


আজ থেকে বাংলাদেশ একটি স্বাধীনও সার্বভৌম স্বতন্ত্র রাষ্ট্র হিসেবে ঘোষিত হইল। বৃহস্পতিবারের গভীর রাতেপশ্চিম পাকিস্তানের সশস্ত্র সেনাবাহিনী ঢাকার পিলখানা ই পি আর হেডকোয়ার্টারএবং রাজারবাগ পুলিশ ব্যারাকে অতর্কিত আক্রমন চালায়। এই অতর্কিত আক্রমনেঢাকাসহ বাংলাদেশের বিভিন্ন স্থানে অসংখ্য নিরীহ, নিরস্ত্র মানুষ অসহায়ভাবেমৃত্যুবরণ করে। ই পি আর এবং পুলিশবাহিনী সাহসের সাথে সশস্ত্র পাকবাহিনীরবিরুদ্ধে প্রতিরোধ যুদ্ধ চালিয়ে যাচ্ছে। বীর বাঙালী একটি স্বাধীনবাংলাদেশের জন্য সাহসের সাথে শত্রুর মোকাবিলা করছে, মুক্তিযুদ্ধ শুরু হয়েগেছে। আমাদের এই মুক্তির সংগ্রামে মহান আল্লাহ বাঙ্গালী জাতির সহায় হোন। জয়বাংলা।

Sheikh Mujib also called upon the people to resist the occupation forces through a radio message. Mujib was arrested on the night of 25–26 March 1971 at about 1:30 am(as per Radio Pakistan's news on 29 March 1971).


শেখ মুজিব রেডিও বার্তার মাধ্যমে দেশের সকল জনগণেরপ্রতি দখলদার বাহিনীর বিরুদ্ধে রুখে দাঁড়ানোর জন্য আহবান জানান। এরপরইমুজিব ২৫-২৬ মার্চ, ১৯৭১ দিবাগত রাত ১:৩০ মিনিটে পাকিস্তানী সেনাবাহিনীরহাতে গ্রেফতার হন (সূত্রঃ ১৯৭১ সালের ২৯শে মার্চ রেডিও পাকিস্তান থেকেসম্প্রচারিত সংবাদ)
A telegram containing the text of Sheikh Mujibur Rahman's declaration reached some students in Chittagong. The message was translated to Bengali by Dr. Manjula Anwar. The students failed to secure permission from higher authorities to broadcast the message from the nearby Agrabad Station of Radio Pakistan. They crossed KalurghatBridgeinto an area controlled by an East Bengal Regiment under Major Ziaur Rahman. Bengali soldiers guarded the station as engineers prepared for transmission. At 7:45 PMon 26 March 1971,[56] Major Ziaur Rahman broadcast announcement of the declaration of independence on behalf of Sheikh Mujibur Rahman.


শেখ মুজিবের স্বাধীনতা ঘোষণা সংবলিত একটিটেলিগ্রাম চট্টগ্রামের কিছু ছাত্রনেতার হাতে পৌঁছানোর পর ডঃ মঞ্জুলা আনোয়ারসেটি বাংলায় অনুবাদ করেন। ছাত্রনেতারা সেই অনুবাদিত টেলিগ্রামটিনিরাপত্তাজনিত কারণে আগ্রাবাদ রেডিও পাকিস্তান থেকে সম্প্রচারের অনুমোদনপাননি। ছাত্রনেতারা তখন কালুরঘাট ব্রীজ পেরিয়ে মেজর জিয়াউর রহমাননিয়ন্ত্রিত ইস্ট বেঙ্গল রেজিমেন্ট এলাকায় পৌঁছান। তারা কালুরঘাট রেডিওস্টেশান থেকে স্বাধীনতার ঘোষণাপত্রটি সম্প্রচারের চেষ্টা করেন।ইঞ্জিনিয়ারগণ যখন ট্র্যান্সমিশান চালু করার চেষ্টা করছিলেন, বাঙালীসৈনিকেরা রেডিও স্টেশানটি পাহারা দিয়ে রেখেছিল। ২৬শে মার্চ, ১৯৭১, সন্ধ্যে৭:৪৫ মিনিটে মেজর জিয়াউর রহমান শেখ মুজিবুর রহমানের পক্ষে ঘোষণাপত্রটি পাঠকরেন।


This is Swadhin Bangla Betar Kendra. I, Major Ziaur Rahman, at the direction of Bangobondhu Mujibur Rahman, hereby declare that Independent People's Republicof Bangladeshhas been established. At his direction , I have taken the command as the temporary Head of the Republic. In the name of Sheikh Mujibur Rahman, I call upon all Bengalees to rise against the attack by the West Pakistani Army. We shall fight to the last to free our motherland. Victory is, by the Grace of Allah, ours. Joy Bangla.[57]

স্বাধীন বাংলা বেতার কেন্দ্রথেকে, আমি, মেজর জিয়াউর রহমান, বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের নির্দেশেগণপ্রজাতন্ত্রী বাংলাদেশের স্বাধীনতা ঘোষণা করছি। তাঁহার নির্দেশানুযায়ী, আমি অস্থায়ী প্রধানের দায়িত্ব গ্রহণ করেছি। শেখ মুজিবুর রহমানের নামে, আমিসকল বাঙালীকে পশ্চিম পাকিস্তানী সেনাদের বিরুদ্ধে গর্জে উঠার ডাক দিচ্ছি।মাতৃভূমিকে শত্রুর কবল থেকে মুক্ত করার জন্য শেষ পর্যন্ত লড়াই করে যাব।মহান আল্লাহর অশেষ কৃপায় জয় আমাদের হবেই। জয় বাংলা।


The Kalurghat Radio Station's transmission capability was limited, but the message was picked up by a Japanese ship in Bay of Bengal. It was then re-transmitted by Radio Australia[58] and later by the British Broadcasting Corporation.


কালুরঘাট রেডিও স্টেশানের সম্প্রচার ক্ষমতাছিল খুবই সীমিত, কিন্তু স্বাধীনতার বার্তাটি বঙ্গোপসাগরে নোঙ্গরকরা জাপানীজাহাজের ট্র্যান্সমিশানে ধরা পড়ে, এবং তা রেডিও অস্ট্রেলিয়া এবং পরবর্তীতেব্রিটিশ ব্রডকাস্টিং কর্পোরেশানের ট্র্যান্সমিশানে তরঙ্গায়িত হয়।


M A Hannan, an Awami League leader from Chittagong, is said to have made the first announcement of the declaration of independence over the radio on 26 March 1971.[59] There is controversy now as to when Major Zia gave his speech. BNP sources maintain that it was 26 March, and there was no message regarding declaration of independence from Mujibur Rahman. Pakistani sources, like Maj. Gen. Fazal Muqeem Khan in his book "PAKISTAN’S CRISIS IN LEADERSHIP"[60] Brigadier Zahir Alam Khan in his book "THE WAY IT WAS"[61] and Lt. Gen. Kamal Matinuddin in his book "TRAGEDY OF ERRORS:EAST PAKISTAN CRISIS, 1968-1971"[62] had written that they heard Major Zia's speech on 26 March 1971 but Maj. Gen. Hakeem A. Qureshi in his book "THE 1971 INDO-PAK WAR: A SOLDIER'S NARRATIVE"[63](Oxford University Press,Karachi,2002), gives the date of Major Zia's speech as 27 March 1971.


স্বাধীনতার ঘোষণাপত্রটি রেডিওতেসর্বপ্রথম পাঠ করেছিলেন চট্টগ্রাম আওয়ামীলীগের নেতা এম এ হান্নান, ১৯৭১সালের ২৬শে মার্চ। বর্তমানে মেজর জিয়ার স্বাধীনতার ঘোষণাপত্রটি পাঠের সময়নিয়ে বিতর্ক আছে। বিএনপি দাবী করে, মেজর জিয়া ২৬শে মার্চ স্বাধীনতার ঘোষণাদিয়েছিলেন, এবং মুজিবুর রহমানের কাছ থেকে স্বাধীনতার ঘোষণা সংবলিত কোনমেসেজ আসেনি। পাকিস্তানী সোর্স, যেমন মেজর জেনারেল মুকিম খান তাঁর লেখা বই“THE WAY IT WAS”এবং লেফট্যানেন্ট জেনারেল কামাল মতিনউদ্দীন,তাঁর লেখা বই“TRAGEDY OF ERRORS:EAST PAKISTAN CRISIS, 1968-1971”তে লিখেছেন যে তাঁরাউভয়েই ২৬শে মার্চ, ১৯৭১ তারিখে মেজর জিয়ার কন্ঠে স্বাধীনতার ঘোষণাপাঠশুনেছিলেন। অপরপক্ষে, মেজর জেনারেল হাকিম এ কোরেশী, তাঁর লেখাবই “"THE 1971 INDO-PAK WAR: A SOLDIER'S NARRATIVE"[63](Oxford University Press,Karachi,2002),”তে লিখেছেন,মেজর জিয়ার ঘোষণাটি ছিল ২৭শে মার্চ, ১৯৭১


26 March 1971 is considered the official Independence Day of Bangladesh, and the name Bangladesh was in effect henceforth. In July 1971, Indian Prime Minister Indira Gandhi openly referred to the former East Pakistanas Bangladesh.[64] Some Pakistani and Indian officials continued to use the name "East Pakistan" until 16 December 1971.


সরকারীভাবে ১৯৭১ সালের ২৬শে মার্চকে বাংলাদেশের স্বাধীনতা দিবস হিসেবেস্বীকৃতি দেয়া হয়েছে এবং একই সময়ে রাষ্ট্রের নাম ‘বাংলাদেশ’ সরকারীভাবেনথিভুক্ত করা হয়েছে। ১৯৭১ সালের জুলাই মাসে ভারতের তৎকালীন প্রধানমন্ত্রীইন্দিরা গান্ধী সর্বপ্রথম মুক্তকন্ঠে প্রাক্তন ‘পূর্ব পাকিস্তান’কেবাংলাদেশ নামে স্বীকৃতি দিয়েছেন। যদিও কতিপয় পাকিস্তানী এবং ভারতীয় অফিসার১৯৭১ সালের ১৬ ডিসেম্বারের আগে পর্যন্ত “ইস্ট পাকিস্তান” নামটিই বলবৎ রেখেছিলেন।

 

                                          

                                  


Share with :

Facebook Twitter